Notice :
  1. সবাইকে স্বাগতম ইসলামিক স্টরি বিডি ডটকম এ

স্বাগতম হে কাশ্মীর


কাশ্মীর নিয়ে ভারতীয় সরকার


কাশ্মীর নিয়ে ভারতীয় সরকারের সাম্প্রতিক সিদ্ধান্ত আহত করেছে। সারা বিশ্বের সাধারণ মুসলিম।

মুসলিম বিশ্বের সকল মুসলিমকে অঙ্গীভূত করা টা মনে হয় ঠিক হলো না। কেননা ভারতের এমন সিদ্ধান্তের পর।

সে দেশের প্রধানমন্ত্রী মধ্যপ্রাচ্যের একটি মুসলিম দেশে রাষ্ট্রীয় সফরে গেলে দেশটির আমির তাকে ফুল মালা পরিয়ে নিজ বাসভবনে বরণ করে নিন।

কাশ্মীরের মুসলিমদের রক্তে লাল শাড়ি লাল গোলাপের মালা দিয়ে বরণ করে নেন। তারা কতটা মুসলিম এটা চিন্তার বিষয়।

সুতরাং সকল মুসলিম বলে এমন মুসলিমদের এক কাতারে নিয়ে আসাটা কাশ্মীরের সঙ্গে অন্যায় কিছুই নয়। এখন কথা হল কাশ্মীর নিয়ে এই ঘনীভুত এই সংকট কাশ্মীরের ভবিষ্যৎ আমরা কিভাবে চিন্তা করতে পারি।

দুটো প্রশ্নের জায়গায় দাঁড়িয়ে আছে দেখুন পৃথিবীর ভূ রাজনৈতিক।

পরিস্থিতি জটিল থেকে জটিলতার হয়ে উঠছ প্রতিটা দেশ নিজ নিজ দেশের অর্থনীতি ও অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে সংঘাতের এমন সব সিদ্ধান্তের দিকে এগুতে পারছে না।

যেগুলো তাদের জন্য ভবিষ্যতে বিপদজনক হতে পারে। কাশ্মীরে ভারত পাকিস্তান আফগানিস্তান আরো দুটো একটা পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্রের এই স্বার্থলোভী যদি করা যায়।

তাহলে কাশ্মীরের উচ্চবাচ্য করার মতো কেউ থাকবে না। বিভিন্ন মুসলিম দেশে মিছিল হবে সামাজিক মাধ্যমে উত্তেজিত লেখাজোকা প্রকাশ পাবে। কেউ কেউ সহমর্মিতার বিবৃতি দেবেএই।

এর চেয়ে বেশি কিছু না হওয়ার সম্ভাবনা নাই। প্রবাহিত স্থানীয় সকল পক্ষই পর্দার আড়ালে যার যার স্বার্থের ব্যাপারে তুষ্ট। সুতরাং ধীরে ধীরে উত্তেজনা কমে আসবে।

এসব কারণে আমেরিকা বা পশ্চিমা বিশ্ব এখানকার।এই ভূরাজনৈতিক খেলা। এর আরো বড় কারণ হলো। বিগত কয়েক বছরে নানা সময়ে ব্যাপক সহিংসতার খবর এসেছে গণমাধ্যমে।

  • ব্যাপক হারে যেমন হত্যা করা হয়েছে

তেমনি কাশ্মীরি স্বাধীনতাকামীদের নিহত হয়েছে বহু সংখ্যক ভারতীয় সেনা। এমন সংবাদের ফলে কাশ্মীর যে একটা যুদ্ধ কবলিত অঞ্চল এমন সত্য আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেছে।

তো এ অঞ্চলকে বশে আনতে সবচেয়ে দুঃখকে পশ্চিমাদের দৃষ্টিতে যোগ্যতার দাবীদার একমাত্র ভারতেই কাশ্মীরের দলিল। তার হাতেই তুলে দেয়া হোক ভবিষ্যতে কাশ্মীর বিষয় আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে।

খুব বেশি কিছু আর শুনবেন না এটা ধরে নেয়া যায়। সত্য কথা বলতে আমরা খুবই আবেগপ্রবণ জাতি কিন্তু বিশ্বস্ত আবেগ দিয়ে চলছে না। এখানে নানা ব্যবসায়িক তথ্য এবং অর্থ রাজনীতির দিয়ে মাপা হয়মানুষের মাথা।

আপনার আমার আবেগ ধর্ম জাতিসত্তার ভালো বাসা। ছবি রাষ্ট্রযন্ত্রের কাছে কেবল এই ব্যবসা ও রাজনীতির হাতিয়ার।

এ কারণে আবেগী না হয়ে যথাসম্ভব বুঝতে চেষ্টা করুন পৃথিবী কোন দিকে যাচ্ছে এবং রাজনীতিতে কে কাকে দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে।

হিসাব আনেকটাই সহজ হয়ে যাবে

Please Share This Post in Your Social Media

© 2020 islamicstorybd.com